• বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০২:৩১ পূর্বাহ্ন |

সৈয়দপুরে একজনকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

সিসি নিউজ ।। নীলফামারীর সৈয়দপুরে একজনকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার গভীর রাতে উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের পশ্চিমবালা পাড়ার হোসেইন আলী (৬০) নামের একজনের বাড়িতে। পাশের জেলা দিনাজপুরের চিরিরবন্দরের ফকিরপাড়ার ক্যানেলের পাশে গুম করার উদ্দেশ্যে ফেলে রাখা মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ।

চোর সন্দেহে পিটিয়ে হত্যার কথা বলা হলেও প্রেমঘটিত কারণে এ হত্যাকান্ড ঘটেছে বলে দাবি একটি পক্ষের। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছেন চিরিরবন্দর থানা পুলিশ। আটককৃতরা হলেন হোসেন আলীর স্ত্রী, তাঁর ছেলে খায়রুল (৩০) ও একই এলাকার নজু হোসেনের ছেলে মোকলেছ (২৪)। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিহত ব্যক্তির পরিচয় পাওয়া যায়নি।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জনা যায়, নিহত ব্যক্তি ওই রাতে হোসেন আলীর বাড়িতে প্রবেশ করে। এ সময় টের পেয়ে আটকৃতরাসসহ আরও কয়েকজন তাঁকে ধরে ফেলে। এ সময় তাঁরা তাঁকে পিটিয়ে মারাত্বকভাবে আহত করেন। পরে অবস্থা খারাপ দেখে একই এলাকার বদর মুন্সির ছেলে পল্লী চিকিৎসক আনসার আলীকে ডেকে আনেন। তিনি পরীক্ষা করে জানান লোকটি মারা গেছেন। পরে লাশ গুম করার উদ্দেশ্যে মরদেহটি উল্লেখিত এলাকায় ফেলে আসা হয়।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে একজনের একাউন্টে মরদেহের ছবি দেখে ওই ওই তিনজনপকে আটক করে পুলিশ। পরে তাঁদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে উল্লেখিত এলাকা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। পরে সেখানে ছুটে যান নীলফামারীর সহকারি পুলিশ সুপার (সৈয়দপুর সার্কেল) সারোআর আলম ও সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল হাসনাত খান।

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসনাত খান জানান, মরদেহটি যেহেতু চিরিরবন্দর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। সেক্ষেত্রে তাঁরা চিরিরন্দর থানা পুলিশকে শুধু সহযোগিতা করেছেন। আটককৃতদের চিরিরবন্দর থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ঘটনাটি তাঁরাই তদন্ত করছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ