• রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ১১:৩৬ অপরাহ্ন |
শিরোনাম :
পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাট খোলা বায়েজিদ আটক নীলফামারী জেলা শিক্ষা অফিসার শফিকুল ইসলামের শ্বশুড়ের ইন্তেকাল সৈয়দপুর সরকারি বিজ্ঞান কলেজের গ্রন্থাগারের মূল্যবান বইপত্র গোপনে বিক্রি ফেনসিডিলসহ সেচ্ছাসেবক লীগের নেতা গ্রেপ্তার এ সেতু আমাদের অহংকার, আমাদের গর্ব: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ-ভারতে রেল যোগাযোগ বন্ধ থাকবে ৮ দিন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন বাংলাদেশের জন্য এক গৌরবোজ্জ্বল ঐতিহাসিক দিন: প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যেতে মানতে হবে যেসব নির্দেশনা সৈয়দপুরে বিস্কুট দেয়ার প্রলোভনে শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ গণমানুষের সমর্থনেই পদ্মা সেতু নির্মাণ সম্ভব হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

এবার মসজিদ বনাম কৃষ্ণ জন্মভূমি বিতর্ক ভারতে

সিসি নিউজ ডেস্ক ।। এবার ভারতের উত্তর প্রদেশের একটি পুরোনো মসজিদের অপসারণ চেয়ে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় দাবি করা হয়েছে মসজিদটি ‘কৃষ্ণ জন্মভূমিতে’ নির্মিত। উত্তর প্রদেশের আদালত মামলাটি গ্রহণ করেছে। এর ফলে, আদালতে মামলাটির শুনানি হবে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।

মামলার আরজিতে কাতরা কেশব দেব মন্দির প্রাঙ্গণ থেকে ১৭ শতকে নির্মিত শাহি ঈদগাহ মসজিদটি অপসারণের দাবি জানানো হয়েছে। আরজিতে আরও দাবি করা হয়, ১৬৬৯–৭০ সালে মুঘল সম্রাট আওরঙ্গজেবের আমলে মসজিদটি হিন্দু ধর্মের অবতার ভগবান কৃষ্ণের জন্মভূমিতে নির্মিত হয়েছে।

মামলাকারী ব্যক্তি লক্ষ্ণৌয়ের অধিবাসী রঞ্জণা অগ্নিহোত্রীর দাবি ভগবান কৃষ্ণের বাল্যকালের বন্ধু কাতরা কেশব দেবের মন্দিরের প্রাঙ্গণে মসজিদটি নির্মাণ করা হয়েছিল।

মামলার আইনজীবী গোপাল খান্ডেলওয়ালা বলেছেন, ‘ভগবান কৃষ্ণের উপাসক হিসেবে এই সম্পত্তি নিয়ে আমাদের মামলা করার অধিকার রয়েছে। মসজিদটি অবৈধভাবে কৃষ্ণ জন্মভূমিতে নির্মাণ করা হয়েছিল। বিগত কয়েক বছর ধরে সমঝোতার মাধ্যমে জমি ভাগ করা হয়েছিল। কিন্তু এই সমঝোতা ছিল অবৈধ।’

এর আগে, মথুরার আদালত মামলাটি ডিসমিস করে দিয়েছিল। আদালত জানিয়েছিল, ১৯৯১ সালের ধর্মীয় স্থাপনা আইনের আওতায় এই মামলাটি গ্রহণযোগ্য নয়। পরে মামলাকারীরা আপিল করলে আদালতে নির্দেশ বাতিল করে মামলাটি শুনানির জন্য গ্রহণ করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ