• রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ১২:৩২ পূর্বাহ্ন |

ইউপি নির্বাচন: জয়পুরহাটে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের শঙ্কা আর উদ্বেগের অভিযোগ

জয়পুরহাট প্রতিনিধি।। জয়পুরহাটের পাঁচবিবির আওলাই ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী ইব্রাহীম হোসেন বিরুদ্ধে হুমকি-ধামকির অভিযোগ করেছেন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা। এতে করে ওই ইউনিয়নে সুষ্ঠু ভোট নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন প্রার্থী এবং ভোটাররা।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আমিনুর রহমান মিয়া জানান, সপ্তম ধাপে পাঁচবিবির আওলাই ইউনিয়ন পরিষদ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল গত ৭ ফেব্রুয়ারী। তবে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী ইব্রাহিম হোসেনের বিরুদ্ধে তার প্রার্থীতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে মামলা করেন বিদ্রোহী প্রার্থী একরামুল হক তাওহীদ চৌধুরী। এতে প্রথম দিকে ইব্রাহিম হোসেনের প্রার্থীতা বাতিল হলে তিনি উচ্চ আদালতে আপীল করেন। এ অবস্থায় উচ্চ আদালতের নির্দেশে গত ৬ ফেব্রুয়ারী নির্বাচন কমিশন থেকে ওই নির্বাচন স্থগিত করা হয়। পরে নির্বাচন কমিশনের ঘোষনা অনুযায়ী আগামী ১৫ জুন নির্বাচনের তারিখ নির্ধারন করা হয় বলে জানান তিনি।

এ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থীসহ মোট ৪ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী, সাধারন সদস্য পদে ৩২ ও সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৪জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করছেন। তারা এ ইউনিয়নের ২৪ হাজার ৬৫৫ জন ভোটারের ভোট টানতে এখন নির্বাচনী মাঠে নির্ঘুম পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।

নির্বাচনের দিন যতই কাছে আসছে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের উদ্বেগ ও শঙ্কা ততই বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিশেষ করে আওয়মীলীগ সমর্থিত প্রার্থী ও তার কর্মী-সমর্থকদের বিরুদ্ধে হুমকি-ধামকীর অভিযোগ করেন প্রতিদ্বন্দী প্রার্থীরা। একই কারনে ভোটাররাও জানিয়েছেন নানা শঙ্কার কথা।

স্বতন্ত্র প্রার্থী আজিজুল হক, ওবায়দুর রহমান ও তাওহীদ চৌধূরী অভিযোগ করেন, আওয়ামীলীগ প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা তাদের কর্মী-সমর্থকসহ সাধারন ভোটারদের হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন। ওই প্রার্থীরা আরো অভিযোগ করেন, ‘ ভোটারদের এই বলে হুমকি দিচ্ছে যে, তারা নৌকায় ভোট দিলে যেন ভোট কেন্দ্রে যান। ’

সুষ্ঠু নির্বাচন হবে কি না, তা নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন সাধারন ভোটাররা। পাইকর দাড়িয়া গ্রামের বুলু মন্ডল, মুগরচন্ডিপুর গ্রামের আসাদ হাসান, আওলাই গ্রামের যুথিষ্ঠী চন্দ্র, শন্তাদিগর গ্রামের এরশাদ মন্ডলসহ নাম প্রকাশে অনেচ্ছুক অনেক ভোটার অভিযোগ করেন, আওয়ামীলীগ প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা বাড়ি বাড়ি এসে হুমকি দিচ্ছে, এ অবস্থায় তারা সুষ্ঠুভাবে পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পারবেন কি না তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে।

আওয়ামীলীগ প্রার্থী ইব্রাহিম হোসেন অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘সরকারের দৃশ্যমান উন্নয়নে মানুষ ভালোবেসে নৌকায় ভোট দিবেন, আমার বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের অভিযোগ সত্য নয়।’

ভোটার আর স্বতন্ত্র প্রার্থী ও ভোটাররা নানা উদ্বেগ আর আশঙ্কা নিয়ে অভিযোগ করলেও নির্বাচন অনুষ্ঠানের দেখভালের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্তারা শুনিয়েছেন আশ্বাসের কথা। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আমিনুর রহমান মিয়া জানান, ‘ নির্বাচন হবে সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ। সুষ্ঠু নির্বাচন করতে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী সতর্ক অবস্থানে থাকবে। সুতরাং প্রার্থী বা ভোটারদের উদ্বেগের কোন কারন নাই।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ