• রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ১০:২৮ অপরাহ্ন |
শিরোনাম :
পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাট খোলা বায়েজিদ আটক নীলফামারী জেলা শিক্ষা অফিসার শফিকুল ইসলামের শ্বশুড়ের ইন্তেকাল সৈয়দপুর সরকারি বিজ্ঞান কলেজের গ্রন্থাগারের মূল্যবান বইপত্র গোপনে বিক্রি ফেনসিডিলসহ সেচ্ছাসেবক লীগের নেতা গ্রেপ্তার এ সেতু আমাদের অহংকার, আমাদের গর্ব: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ-ভারতে রেল যোগাযোগ বন্ধ থাকবে ৮ দিন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন বাংলাদেশের জন্য এক গৌরবোজ্জ্বল ঐতিহাসিক দিন: প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যেতে মানতে হবে যেসব নির্দেশনা সৈয়দপুরে বিস্কুট দেয়ার প্রলোভনে শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ গণমানুষের সমর্থনেই পদ্মা সেতু নির্মাণ সম্ভব হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

ঈদ উপলক্ষে শিথিল হচ্ছে ৮টায় দোকানপাট বন্ধের নির্দেশ

সিসি নিউজ ডেস্ক ।। আসন্ন ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সাশ্রয়ের জন্য রাজধানীতে রাত ৮টায় দোকানপাট বন্ধের সিদ্ধান্ত শিথিল হচ্ছে বলে জানিয়েছেন দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন।

ব্যবসায়ীদের ক্ষতির হাত থেকে বাঁচাতে ১ জুলাই থেকে ১০ জুলাই পর্যন্ত নির্দেশ শিথিল থাকবে বলে জানান তিনি। এরপর ব্যবসায়ীরা সরকারি নির্দেশনা মেনে চলবেন বলে জানান তিনি।

মঙ্গলবার তিনি বলেন, সরকার যেহেতু একটি আইন প্রণয়ন করেছে, সেহেতু আইন আমরা মানতে বাধ্য। তবে ব্যবসায়ী এবং ঈদের বাজারের কথা মাথায় রেখে আগামী ১ জুলাই থেকে ১০ জুলাই পর্যন্ত ৮টায় মার্কেট বন্ধের যে নিয়ম, সেটা স্থগিত থাকবে। ঈদের পর যথারীতি ৮টাতেই মার্কেট বন্ধ হবে।

এ প্রসঙ্গে নিউমার্কেট ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সভাপতি দেওয়ান আমিনুল ইসলাম শাহীন বলেন, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সাশ্রয়ের জন্য সরকার রাত ৮টায় দোকান বন্ধের নিয়ম করেছে, যা আমরা মানছি। কিন্তু এর ফলে ব্যবসায়ীরা ক্ষতির মুখে পড়ছেন। কারণ মূল ব্যবসাটাই হয় সন্ধ্যা থেকে। আসন্ন ঈদ উপলক্ষে এ নিয়ম শিথিল করা হবে। তবে ঈদের পর আমরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করব যেন সার্বিক বিবেচনায় দোকানপাট অন্তত ৯টায় বন্ধের নির্দেশ দেয়া হয়।

১৬ জুন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক (প্রশাসন) মো. আহসান কিবরিয়া সিদ্দিকের সই করা এক চিঠিতে রাত ৮টার পর সারা দেশে দোকান, শপিংমল, মার্কেট, বিপণিবিতান, কাঁচাবাজার বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে বৈশ্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় দেশে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সাশ্রয়ের জন্য পরবর্তী নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত বলবৎ থাকবে বলে জানিয়েছে সরকার।

এদিকে রাত আটটায় দোকানপাট বন্ধের নির্দেশে ক্ষুব্ধ ও হতাশ হয়েছেন ব্যবসায়ীরা। তারা বলছেন, করোনাভাইরাস মহামারিতে গত দুই বছরে ঈদ-নববর্ষসহ অন্য উৎসবে পুরোমাত্রায় বেচাকেনা না হওয়ায় লোকসান গুনতে হয়েছে। এ অবস্থায় রাত ৮টার পর দোকান, শপিংমল, মার্কেট, বিপণিবিতান খোলা না রাখার সরকারি নির্দেশনায় ফের ক্ষতির মুখে পড়বেন। ঈদের সময় ব্যবসা করতে না পারলে করোনায় ক্ষতির পর তাদের ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা ব্যাহত হবে।

কথা হয় মোহাম্মদপুর কৃষি মার্কেটের পোষাক ব্যবসায়ী সিয়াম ফ্যাশনের স্বত্তাধিকারী শাহজাহান হোসেনের সাথে। তিনি বলেন, আমাদের মূল বেঁচা-বিক্রি শুরু হয় বিকাল বা সন্ধ্যা থেকে। চলে রাত অব্দি। এখন যদি ৮টার মধ্যে দোকানপাট বন্ধ করে দিতে হয় তাহলে আমাদের ক্ষতির মুখে পড়তে হবে।

সাধারণ বা উৎসবকেন্দ্রিক কেনাবেচায় মূলত সন্ধ্যার পরই অফিসফেরত ক্রেতাদের সমাগম শুরু হয়। এমন প্রেক্ষাপটে রাত ৮টা পর্যন্ত কেনাবেচা সীমিত করা হলে দেশের লাখ লাখ ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায়ী বিপাকে পড়বেন, একই সঙ্গে ক্রেতাসাধারণকেও পোহাতে হবে ভোগান্তি।

গাউছিয়া মার্কেটের আমজাদ শপের বিক্রয়কর্মী সোহেল খান বলেন, মানুষের অফিস ছুটি হয় ৫টা বা ৬টার দিকে। সে সময় বা তার কিছু সময় পরে অনেকেই ফ্যামিলি সমেত কেনাকাটা করতে আসেন। সামনে কোরবানির ঈদ। এমতাবস্থায় ৮টায় দোকানপাট বন্ধ করে দিলে লোকসানের মুখ দেখতে হবে।

নিউমার্কেটের পিংকি ফ্যাশনের মালিক মোস্তাক ভুইঁয়া  বলেন, সরকারের এমন সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে ভাবা উচিৎ ছিলো। সামনে ঈদের বাজার। আমরা চাই কোরবানি ঈদ পর্যন্ত রাত ৮টায় দোকান বন্ধের সিদ্ধান্ত স্থগিত করা হোক। উৎস: ঢাকাটাইমস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ