• শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৩:২২ পূর্বাহ্ন |

ঢাবির ‘ক’ ইউনিটে প্রথম নটর ডেমের আসীর আনজুম

সিসি নিউজ ডেস্ক।। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষে বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। এতে উত্তীর্ণ হয়েছেন ১০ দশমিক ৩৯ শতাংশ শিক্ষার্থী। অকৃতকার্য হয়েছেন ৮৯ দশমিক ৬১ শতাংশ শিক্ষার্থী।

পরীক্ষায় প্রথম হয়েছেন নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী আসীর আনজুম খান। তিনি মোট নম্বর পেয়েছেন ১১৫। দ্বিতীয় হয়েছেন খালিদ হাসান তুহিন। তিনিও নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী। তিনি মোট নম্বর পেয়েছেন ১১৫। তৃতীয় হয়েছেন জারিফা তাবাসসুম। তিনি জয়পুরহাট গার্লস ক্যাডেট কলেজের শিক্ষার্থী। তিনি মোট নম্বর পেয়েছেন ১১৫। তিনজনই একই নম্বর পেলেও বিভিন্ন নীতিমালা মেনে মেধাক্রম নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

আজ সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ভবনের অধ্যাপক আব্দুল মতিন চৌধুরী ভার্চুয়াল ক্লাসরুমে আনুষ্ঠানিকভাবে এই ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

পরীক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক পূর্ব ওয়েবসাইট (http://admission.eis.du.ac.bd) থেকে লগইন করে ফল জানতে পারবেন। এ ক্ষেত্রে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার রোল নম্বর, বোর্ডের নাম, পাসের সাল এবং মাধ্যমিক পরীক্ষার রোল নম্বর লাগবে।

এ ছাড়া যেকোনো মোবাইল অপারেটর থেকে DU Ka <roll no> টাইপ করে 16321 নম্বরে পাঠিয়ে (send) ফিরতি এসএমএসে ফলাফল জানা যাবে।

ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ সব শিক্ষার্থীকে ৬ জুলাই বিকেল ৩টা থেকে ২১ জুলাই বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভর্তি পরীক্ষার ওয়েবসাইটে নিজ প্রোফাইলে বিস্তারিত ফরম ও বিষয় পছন্দক্রম ফরম পূরণ করতে হবে। কোটায় আবেদনকারীদের ১৭ জুলাই থেকে ২৪ জুলাই পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট কোটার ফরম ফার্মেসি অনুষদের ডিন কার্যালয় থেকে সংগ্রহ করতে হবে এবং তা যথাযথভাবে পূরণ করে একই সময়ের মধ্যে ডিন কার্যালয়ে জমা দিতে হবে। ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণ করতে চাইলে তা নিরীক্ষার জন্য ফি দেওয়া সাপেক্ষে ৬ জুলাই থেকে ২৪ জুলাই পর্যন্ত ফার্মেসি অনুষদের ডিন কার্যালয়ে জমা দিতে হবে।

এর আগে গত ১০ জুন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ ৭টি বিভাগীয় শহরে একযোগে এই ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষায় ১ হাজার ৮৫০টি আসনের বিপরীতে ১ লাখ ১৫ হাজার ৭২৬ জন আবেদন করেন। অংশ নেন ১ লাখ ১০ হাজার ৩৭৪ জন। পাস করেন ১১ হাজার ৪৬৬ জন।

ফল প্রকাশ অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার সমন্বয়ক ও ফার্মেসি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সীতেশ চন্দ্র বাছার, কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. আব্দুল বাছির, অনলাইন ভর্তি কমিটির আহ্বায়ক এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক মো. মোস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ।

‘ক’ ইউনিটের অধীন মোট পাঁচটি অনুষদ এবং পাঁচটি ইনস্টিটিউট রয়েছে। পাচঁটি অনুষদ হচ্ছে বিজ্ঞান, জীববিজ্ঞান, ফার্মেসি, আর্থ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্সেস, ইঞ্জিনিয়ারিং এবং টেকনোলজি অনুষদ। সবগুলো অনুষদের অধীনে মোট ৩৪টি বিভাগ রয়েছে।

পাঁচটি ইনস্টিটিউট হচ্ছে স্ট্যাটিসটিক্যাল রিসার্চ অ্যান্ড ট্রেনিং, নিউট্রিশন অ্যান্ড ফুড সায়েন্সেস, ইনফরমেশন টেকনোলজি, লেদার ইঞ্জিনিয়ারিং এবং এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউট।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ