• রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ০১:০০ অপরাহ্ন |

বাসচাপায় ছেলে-মেয়েসহ মা নিহত, মহাসড়ক অবরোধ

সিসি নিউজ ডেস্ক।। টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে মহাসড়ক পার হওয়ার সময় যাত্রীবাহী বাসের চাপায় মা, মেয়ে ও ছেলের মৃত্যু হয়েছে। আজ শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের উপজেলার পাকুল্যা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পর স্থানীয় বিক্ষুব্ধ জনতা ওভারব্রিজের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ করে রেখেছে। এতে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতরা হলেন উপজেলার বাঁশতৈল গ্রামের পারভিন আক্তার (২৭), তাঁর মেয়ে সাদিয়া আক্তার (৯) ও ছেলে সুমন (৭)।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, শনিবার সকালে পারভিন আক্তার বাবার বাড়ি পানিসাইল থেকে ছেলেমেয়েকে নিয়ে বাঁশতৈলে স্বামীর বাড়ি যাওয়ার জন্য পাকুল্যা বাসস্ট্যান্ডে আসেন। পরে মহাসড়ক পার হওয়ার সময় দ্রুতগতির একটি যাত্রীবাহী বাস তাদের চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই মেয়ে সাদিয়া মারা যায়। গুরুতর আহত মা ও ছেলেকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলার জামুর্কী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে তাদের টাঙ্গাইল সদরে শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পৌঁছালে আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা লুৎফর রহমান তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে পাকুল্যা বাসস্ট্যান্ডে এলাকায় ফুটওভারব্রিজ না থাকায় মহাসড়ক পারাপারের সময় সড়ক দুর্ঘটনায় মাঝেমধ্যে হতাহতের ঘটনা ঘটে। এ কারণে এলাকাবাসী ওই এলাকায় একটি ওভারব্রিজের দাবিতে ইতিপূর্বে মানববন্ধন ও মহাসড়ক অবরোধও করে। ওই সময় প্রশাসনের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি ও সড়ক বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা এসে ওভারব্রিজ নির্মাণের আশ্বাস দিলেও দীর্ঘদিনে তা বাস্তবায়ন করা হয়নি বলে জানান পাকুল্যা এলাকার বাসিন্দা ইমরান চৌধুরী।

পরে আজ শনিবার একই এলাকায় মহাসড়ক পারাপারের সময় মা, ছেলে ও মেয়ের মৃত্যুতে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকে। এ সময় স্থানীয় রাজনীতিবিদ ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা অবরোধে অংশ নেন। তাঁরা দ্রুত মহাসড়কের জনগুরুত্বপূর্ণ ওই স্থানে ফুটওভারব্রিজ নির্মাণ না করা পর্যন্ত মহাসড়ক অবরোধ তুলে নেবেন না বলে জানান।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে মির্জাপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আমিনুল ইসলাম বুলবুল বলেন, ‘গোড়াই হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোল্লা টুটুল ঘটনাস্থলে পৌঁছে অবরোধকারীদের শান্ত করার চেষ্টা করছেন। কিন্তু তাঁদের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত মহাসড়ক থেকে অবরোধ তুলে নেবেন না বলে জানিয়েছেন।’

দুপুর পৌনে ২টায় এ খবর পাঠানোর সময় পর্যন্ত মহাসড়ক অবরোধ করে রাখা হয়েছে। এদিকে অবরোধের কারণে মহাসড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ায় ঈদের ছুটি শেষে কর্মস্থলে ফেরা হাজারো যাত্রীকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আমিনুল ইসলাম বুলবুল বলেন, ‘বিক্ষুব্ধ জনসাধারণের সঙ্গে কথা চলছে। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে। আশা করছি কিছুক্ষণের মধ্যে মহাসড়ক অবরোধ তুলে নেওয়া হবে।’

উৎসঃ আজকের পত্রিকা


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ