• রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ১২:৫৩ পূর্বাহ্ন |

সৈয়দপুরে কোচিংয়ে যাওয়ার পথে স্কুলছাত্রী অপহরণ: যুবক গ্রেপ্তার

সিসি নিউজ।। নীলফামারীর সৈয়দপুরে অপহৃতা এক স্কুলছাত্রীকে (১৬) উদ্ধার করা হয়েছে। গত শুক্রবার দিবাগত রাতে উপজেলার কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়নের কিসামতডাঙ্গী গুয়াবাড়ী থেকে ওই স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। এ সময় অপহরণকারী সোহেল হোসেনকে (২১) গ্রেপ্তার করা হয়। গত ১৪ জুলাই সকাল সোয়া ছয়টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে কোচিংয়ের যাওয়ার পথে অপহরনের শিকার হন ওই স্কুলছাত্রী। এ ঘটনায় সৈয়দপুর থানায় মামলা হলে পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে তাকে উদ্ধার করতে সক্ষম হন। মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়নের চওড়া বালপাড়ার আশরাফ আলী’র স্কুল পড়ুয়া মেয়ে (১৬)। সে স্থানীয় একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত। আর অপহরণকারী সোহেল হোসেন নীলফামারীর সদর উপজেলার চড়াইখোলা ইউনিয়নের চওড়া বাগিচাপাড়ার ফারুক হোসেনের ছেলে। ওই স্কুল ছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে সোহেল পথেঘাটে বিভিন্নভাবে উত্ত্যক্ত করে আসছিল দীর্ঘদিন ধরে। বিষয়টি স্কুল ছাত্রীর পরিবারের পক্ষ থেকে সোহেলের পরিবারকে একাধিকবার অবগত করা হয়। কিন্তু সোহেল হোসেনের পরিবার তা মানতে রাজি নয়।

ঘটনার দিন গত ১৪ জুলাই সকাল আনুমানিক ছয়টার দিকে ওই স্কুল ছাত্রী কোচিংয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যে তাদের চওড়া বালাপাড়ার বাড়ি থেকে বের হয়। কিন্তু বিকেল পর্যন্ত সে বাড়ি ফিরে না এলে পরিবারের লোকজন তাকে খোঁজাখুঁজি করতে থাকেন। আর খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে প্রতিবেশির মাধ্যমে জানতে পারেন সোহেল হোসেন ওই স্কুল ছাত্রীকে বাড়ির পাশের অচিনেরডাঙ্গার কমিউনিটি ক্লিনিকের সামনের পাকা রাস্তা থেকে জোরপূর্বক অপহরণ করে তুলে নিয়ে গেছে। এ ঘটনার পর স্কুলছাত্রীর বাবা আশরাফ আলী নিজে বাদী হয়ে অপহরণকারী সোহেল হোসেনসহ চারজনের নাম উল্লেখপূর্বক সৈয়দপুর থানায় শুক্রবার রাতে একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন। ওই মামলা দায়েরের পরপরই সৈয়দপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ইন্দ্র মোহন রায়ের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে পুলিশ রাত দুইটায় উপজেলার কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়নের কিসামতডাঙ্গী গুয়াবাড়ী এলাকা অপহরণকারী সোহেলের নানার বাড়ি থেকে অপহৃতা স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করেন। এ সময় ওই বাড়ি থেকে অপহরণকারী সোহেল হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়। সৈয়দপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ইন্দ্র মোহন রায় জানান, ভিকটিমের ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠনো হয়েছে। আর গ্রেপ্তারকৃত আসামী সোহেল হোসেনকে আদালতের মাধ্যমে নীলফামারী জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইফুল ইসলাম অপহৃতা স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার ও অপহরণকারীকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি সিসি নিউজকে নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, মামলার অন্যান্য আসামীদেরও গ্রেপ্তারে পুলিশী তৎপরতা চলছে


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ